ন্যাশনাল র্গালস প্রোগামিং প্রতিযোগিতা - ২০১৮

প্রকাশঃ ০৪:৪৪ মিঃ, অক্টোবর ২২, ২০১৮
Card image cap


টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

কনটেস্ট শুরু হলো ন্যাশনাল র্গালস প্রোগামিং প্রতিযোগিতা - ২০১৮ ।তৃতীয় বারের মত আয়োজিত এ  প্রোগামিং কনটেস্ট এ উদ্ভোধন করেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম,ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি(ডিআইইউ) কতৃক আয়োজিত এই প্রতিযোগিতার উদ্ভোধন অনুষ্ঠিত হয় ডিআইইউ-র নিজস্ব অডিটোরিয়াম হল  ৭১-এ। উদ্ভোধন  অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হোসনে আরা বেগম, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক জনাব ইউসুফ এম ইসলাম, এবং প্রো ভাইস চ্যান্সেলার অধ্যাপক  ডঃ এস এস মাহবুব উল হক মজমুদার এবং প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার প্রধান, কম্পিউটার সায়েন্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ,(ডি আই ইউ) ডঃ আকতার হোসেন ।

স্বাগত বক্তব্যে অধ্যাপক ইউসুফ এম বলেন  প্রোগামিং প্রতিযোগিতায় যে মেয়েরা অংশ গ্রহন করেছে তারাই আমাদের উৎসাহিত করেছে, আরো ভালো কিছু করার। আয়োজন সম্পর্কে ডঃ আকতার হোসেন বলেন এবার সারা দেশে হতে ১০৩ টি দল অংশ গ্রহন করেছে, যার মধ্যে ৫০ টি দল এসেছে ঢাকার বাইরের শহর গুলো হতে যা আমাদের  জন্য উৎসাহ বেনজক । এবারের প্রথম আমরা প্রাথমিক বিদ্যায়ের ছাএীদের  প্রতিযোগিতার  সাথে  সংযুক্ত করেছি। সারা দেশ হতে বাচ্চাদের দশটি দল এই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করেছে।  বিজয়ী দলকে একলক্ষ টাকা পুরষ্কার দেয়া হবে এবং সেই সাথে বাংলাদেশ সরকারের হাই-টেক পার্ক কতৃপক্ষ বিজয়ী দলকে চীন সফরে নিয়ে যাবার ঘোষনা দিয়েছে বলে জানান তিনি ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হোসনে আরা বেগম বলেন তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে প্রযুক্তির সংঙ্গেই আমাদের তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। তথ্য প্রযুক্তিতে মেয়েদের অংশগ্রহন  বাড়াতে ইাইটেক পার্কের বিভিন্ন প্রকাশ ও কর্মসূচীর কার্য উল্লেখ করে তিনি বলেন -২৮ টি জেলায় আমরা ইাইটেক পার্ক তৈরী করেছি যেখানে নারীদের জন্য  স্থান সংকুলানের আলাদা ব্যবস্থা আছে, কিন্তু আমরা নারী উদ্দ্যেক্তা পাচ্ছিনা। আবার আপনাদের জন্য বিশাল ফ্লোর রেখেছি যাতে  তারা সুযোগ পায় এবং নিজেদেরকে ডেভোলাপ করতে পারে। ইনোভেশন ফান্ড রয়েছে আর্থিক সহযোগিতা  করার জন্য । অথাৎ সরকার তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহন বাড়াতে কাজের সুযোগ সৃষ্টিতে দক্ষতা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে । ফলশ্রুতিতে তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহন বেড়েছে। তবে তা আশানুরুপ নয়। আজ তোমরা যারা প্রোগামিং প্রতিযোগিতায় এসেছো তোমরা আমাদের আগামী উদ্দ্যোক্তা,কিংবা নারী প্রযুক্তিবিদ । আমরা চাই তোমাদেরমত করে আরো মেয়েরা এগিয়ে আসুক। কারণ সময় বদলেছে আমাদেরকে বলাতে হবে । দেশ এগিয়ে নেবার দায়িত্ব পুরুষদের মত আমাদেরও ।সেই সাথে বলবো আভিভাবকরাও যেন আরো সচেতন হন এবং তাদের মেয়েদেরকে তথ্য প্রযুক্তিতে ক্যারিয়ার তৈরিতে উৎসাহিত করেন।এই প্রতিযোগিতায় সহ আয়োজক বাংলাদেশ সরকারের ( আইসিটি ডিভিশন) এবং সহযোগী পার্টনার হিসাবে আছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এবং মাসিক টেকওয়াল্ড বাংলাদেশ ।

আজ বিকাল ৪ টায় ফলাফল ঘোষণা করা হবে , তারপর অনুষ্ঠিত হবে অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠনে উপস্থিত থাকবেন মাননীয় তথ্য মন্ত্রী জনাব মোস্তফা জব্বার। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন  তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।         

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৪৩ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ