কিউএস এশিয়া ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান

প্রকাশঃ ০৩:৫৯ মিঃ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮
Card image cap

কিউএস এশিয়া ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান

টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

কিউএস এশিয়া ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান অর্জন করেছে। আজ বুধার (২৪ অক্টোবর) কিউএস (কোয়াককোয়ারেল সাইমন্ডস) এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ২০১৯ সালের এশিয়ার ৫০০ সেরা বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিং তালিকায় দেখা যায়, বাংলাদেশে থেকে মাত্র দুটি পাবলিক এবং ৪টি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এ তালিকায় স্থান পেয়েছে। তালিকায় বাংলাদেমের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অবস্থান ৬ষ্ঠ এবং এশিয়ার মধ্যে ৪৫৪ তম । এর আগে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (১২৭) ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (১৭৫) সহ আরো ৩টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। একটি নবীন বিশ্ববিদ্যালয় (২০০২ সালে প্রতিষ্ঠিত) হিসেবে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এ এক অনন্য অর্জন।
যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কোয়াককোয়ারেল সাইমন্ডস (কিউএস) প্রতিবছর মোট ১১টি আন্তর্জাতিক মানদণ্ডের ভিত্তিতে সারা পৃথিবীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর র‌্যাংকিং প্রকাশ করে থাকে। এগারোটি মানদণ্ডের মধ্যে রয়েছে: প্রাতিষ্ঠানিক সাফল্য, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাফল্য, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাফল্য, আন্তর্জাতিক গবেষণা নেটওয়ার্ক, গবেষণা প্রবন্ধের সাইটেশন, পিএইচডি ডিগ্রিধারী শিক্ষক-কর্মকর্তাদের সংখ্যা, আন্তর্জাতিক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অনুপাত, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিক্ষার্থী বিনিময়ের হার ইত্যাদি।
বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাংকিংয়ের বিশ্ব-স্বীকৃত তিনটি তালিকার অন্যতম একটি কিউএস ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিং। অপর দুইটি হচ্ছে অ্যাকাডেমিক র‌্যাংকিং অব ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটিস এবং টাইম হায়ার এডুকেশন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিং। কিউএস ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অন্তর্ভূক্ত হওয়া শুধু বিশ্ববিদ্যালটিরই অসামান্য অর্জন নয় বরং বাংলাদেশের জন্যও তা গৌরবের। বলার অপেক্ষা রাখেনা, গুণগত শিক্ষার মান অব্যাহতভাবে ধরে রাখা, বাংলাদেশ উচ্চতর পর্যায়ে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা এবং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করা স্নাতকদের মেধাবী অবদানের স্বীকৃতিই পেল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। এর ফলে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির গ্যাজুয়েটদের গ্লোবাল মার্কেটে কর্মসংস্থানের পথ সুগম হবে।
উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৭ সালে ইউআই গ্রিনমেট্রিক ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশে শীর্ষস্থান এবং সারাবিশ্বে ১৫৩তম স্থান অর্জন করেছিল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। এছাড়া ২০১০ সালে ‘র‌্যাংকিং ওয়েব অব ইউনিভার্সিটি (ওয়েবমেট্রিকস)’- তেও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে দ্বিতীয়  স্থান অর্জন করেছিল।

 

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৩৬ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ