রাজধানীর ৮০ লাখ নাগরিকের তথ্য ডিজিটাল ডাটাবেজে

প্রকাশঃ ০৪:৩২ মিঃ, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯
Card image cap

রাজধানীর ৮০ লাখ নাগরিকের তথ্য ডিজিটাল ডাটাবেজে

টেকওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি:

বর্তমান যুগে অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করতে ডিজিটাল মনিটরিং প্রয়োজন। সেলক্ষ্যে রাজধানীর ৮০ লাখ নাগরিকের তথ্য ইতোমধ্যে ‘সিটিজেন ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’র (সিআইএমএস) ডাটাবেজে সংরক্ষিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) রাজধানীর আফতারনগরের ‘জহুরুল ইসলাম সিটি সিসিটিভি কন্ট্রোল রুম’ উদ্বোধন ও ‘পুলিশ সেবা সপ্তাহ’র র‌্যালি শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, একটি টেকসই নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য বিশ্বের উন্নত শহরগুলোর মতো আমরা ঢাকার নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করেছি, আধুনিক তথ্য ডাটাবেজ করেছি, এর নাম ‘সিআইএমএস’। এই মুহূর্তে রাজধানীর ৮০ লাখ নাগরিকের তথ্য রয়েছে আমাদের ডাটাবেজে। যাতে কোনো এলাকায় অপরাধ সংঘটিত হলে ওই এলাকার বসবাসরত লোকদের সহজেই আমরা খুঁজে বের করতে পারি।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, মহানগরীতে ছিনতাই, ডাকাতি, অজ্ঞান ও মলম পার্টির এসব এখন আর নেই বললেই চলে। তারপরও দু’একটা ঘটনা সংঘটিত হলে আমরা ন্যূনতম সময়ের মধ্যে তা চিহ্নিত করে ফেলছি কারণ আমরা এখন প্রযুক্তির ব্যবহার করছি, সিসি টিভির মাধ্যমে পর্যালোচনা করছি।

শুধু অপরাধ ও অপরাধের জন্য নয়, ডিজিটাল মনিটরিং দেশের সব ধরনের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের জন্য অবশ্যক মন্তব্য করে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে আপনারা জানেন গুলশান, বনানী, নিকেতন বারিধারা বিভিন্ন সোসাইটির মাধ্যমে হাজার হাজার সিসি ক্যামেরা স্থাপন করে এলাকাগুলোকে ডিজিটাল মনিটরিংয়ের ভেতর নিয়ে এসেছি, ফলে ওইসব এলাকাগুলোতে অপরাধ এক প্রকার শূন্য।

তারই ধারাবাহিকতায় আজকে আফতাবনগর জহুরুল ইসলাম সিটিতে একশ’ সিসি ক্যামেরা স্থাপনের উদ্বোধন হলো। যা এখানকার অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আমরা বলতে পারি এই সিসিটিভি স্থাপনের মাধ্যমে এলাকায় টেকসই নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হবে এবং জনগণ নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারবে।

সংবাদটি পঠিত হয়েছেঃ ৫৬ বার


মুখোমুখি

Card image cap
‘বাংলাদেশকেই হিটাচি পণ্যের বাজার হিসেবে অধিক সম্ভাবনাময় দেশ বলে মনে হয়’ - চেন টেক ব্যঙ্ক

হিটাচি হোম ইলেকট্রনিক্স এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক প্রকৃতঅর্থে একজন বয়োজষ্ঠ্য, কিন্তু তার জ্ঞানের পরিধি এবং অক্লান্ত পরিশ্রম তার বয়সকেও হার মানিয়ে দেয়। আর সে কারণেই তিনি হয়ে ওঠেন এক অদম্য যুবকের সমতুল্য। তার আধুনিক ব্যবসায়িক চিন্তাধারা এশিয় অঞ্চলে হিটাচি পণ্য ও সেবার  বাজারের ব্যাপক প্রসার ঘটাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বাংলাদেশে হিটাচি কোম্পানির ডিস্ট্রিবিউটর ইউনিক বিজনেস সিস্টেম লিমিটেড কর্তৃক আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে মাসিক টেকওয়ার্ল্ড পত্রিকার প্রতিনিধির জনাব চেন টেক ব্যঙ্ক এর সাক্ষাৎকার গ্রহণের সুযোগ হয়, যার উল্লেখযোগ্য অংশটুকু এখানে তুলে ধরা হলোঃ

প্রশ্নঃ সাধারণ